1. admin@ultimatenewsbd.com : adminsr : Admin Admin
  2. afridhasan.ahb@gmail.com : Shah Imon : Shah Imon
বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ১০:৫৩ অপরাহ্ন

বন্ধ হচ্ছে ‘পাওয়ার অব অ্যাটর্নি’ ব্যবস্থা

নিজস্ব প্রতিবেদক, ultimatenewsbd.com
  • আপডেটের সময় : বৃহস্পতিবার, ৩১ মার্চ, ২০২২
  • ১৭৫

পাওয়ার অফ অ্যাটর্নি ব্যবস্থার ঢালাও ব্যবহার আর থাকছে না। অপব্যবহারের উল্লেখ করে এই ক্ষমতা তুলে দেয়ার পক্ষে মত দিয়েছেন ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী।

ভূমিমন্ত্রী বলেন, ‘পাওয়ার অফ অ্যাটর্নি নিয়ে অনেক সমস্যা হচ্ছে। এই সুবিধাটির অপব্যহার করা হচ্ছে। তাতে নানা সমস্যা হচ্ছে। আমি সরাসরি বলে দিয়েছি, যারা প্রবাসে থাকে তাদের ক্ষেত্রে এম্বেসির মাধ্যমে পাওয়ার অফ অ্যাটর্নি ইলিজেবল। তবে যারা দেশে আছে তাদের ক্ষেত্রে নো মোর পাওয়ার অ্যাটর্নি। পাওয়ার অফ অ্যাটর্নি বন্ধ করে দেব।’

ভূমির নামজারি ডিজিটালাইজ করার বিষয়ে সরকার প্রায় শতভাগ সফলতা পেয়েছে বলে দাবি করেন ভূমিমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘আমরা ডিজিটাইজেশনে অনেকটা সাকসেস হয়েছি। আমি বলতে পারি, নামজারি শতভাগ না হলেও শতভাগের কাছাকাছি আমরা অনলাইনে চলে গেছি।

‘আমরা একটি কাটঅফ টাইম দিয়েছিলাম, ম্যানুয়াল পদ্ধতিতে আর কোনো মিউটেশন হবে না। আমরা এটায় সাকসেসফুল। আমি বলবো, ৯৯ ভাগ ক্ষেত্রে ফুললি ডিজিটাইজড।’

মন্ত্রী বলেন, ‘ভূমি উন্নয়ন কর নেয়া নিয়ে মাঠপর্যায়ে অনেক হয়রানি আছে। আমরা অনলাইনে কাজ শুরু করেছি। পাশাপাশি ম্যানুয়ালিও চলছে। কারণ অনেক ডাটা এখনও এন্ট্রি হয়নি। ডাটাগুলো সব এন্ট্রি হয়ে গেলে ম্যানুয়ালি আর কোনো ভূমি উন্নয়ন ট্যাক্স নেয়া হবে না। আশা করছি এ বছরের শেষ নাগাদ ম্যানুয়ালি ট্যাক্স গ্রহণ পুরোপুরি বন্ধ করে দেয়া সম্ভব হবে।’

ভূমিমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা মাঠপর্যায়ে ডিসক্রিশনারি পাওয়ার কমানোর চিন্তাভাবনা করছি। মাঠপর্যায়ে জবাবদিহিতার ক্ষেত্রে এখনও তারা স্বেচ্ছাচারিতা করে, হয়রানি করতে চায়। তাদের এই ক্ষমতা আমরা অনেক ক্ষেত্রেই কমিয়ে ফেলবো। আর নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে কাজ শেষ করতে না পারলে তাদের জবাবদিহি করতে হবে।’

বাংলাদেশ ডিজিটাল সার্ভেই সর্বশেষ সার্ভে হবে বলে জানান মন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘বিডিএস হবে সর্বশেষ সার্ভে- বাংলাদেশ ডিজিটাল সার্ভে। বরগুনা ও পটুয়াখালীতে এটা পাইলট প্রকল্প হিসেবে নিচ্ছি। ড্রোনের মাধ্যমে, স্যাটেলাইটের মাধ্যমে ইমেজ নিয়ে আমরা কাজ করবো। এটায় সাকসেসফুল হলে আমরা রেপ্লিকা করবো সারা দেশে।

মন্ত্রী জানান, আমাদের এখানে ট্রায়াল অ্যান্ড অ্যাররের মাধ্যমে সার্ভেটা করতে হবে। অ্যাকিউরেসি ইজ ভেরি ইমপরটেন্ট। বাংলাদেশে ডিজিটাল সার্ভের পর আর কোনো সার্ভে প্রয়োজন হবে না। আমরা এখানে হান্ড্রেড পারসেন্ট অ্যাকিউরেসি এনশিওর করার চেষ্টা করবো। এখন টেকনোলজির যুগ। আমরা আধুনিক সম্ভাব্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে স্বল্প সময়ের মধ্যে সারা দেশে সার্ভেটা করবো।’

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও খবর
© আল্টিমেট কমিউনিকেশন লিমিটেডের একটি অঙ্গ প্রতিষ্ঠান   ***চলছে পরীক্ষামূলক কার্যক্রম***
Theme Customized BY LatestNews