1. admin@ultimatenewsbd.com : adminsr : Admin Admin
  2. afridhasan.ahb@gmail.com : Shah Imon : Shah Imon
শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ০৬:১৩ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ সংবাদ
আওয়ামী লীগ বর্গীর রূপ নিয়েছে: মির্জা ফখরুল অন্যান্য দেশের মতো আমাদেরও রিজার্ভ ব্যবহার করে চলতে হচ্ছে: প্রধানমন্ত্রী বিএনপিকে এখন ছাড় দিচ্ছি, ডিসেম্বরে দেব না: সেতুমন্ত্রী পর্যাপ্ত খাদ্য মজুদ আছে, দুর্ভিক্ষ হবে না: খাদ্যমন্ত্রী দেশের বিরুদ্ধে প্রপাগান্ডা চালানো ব্যক্তিদের ব্যাপারে কাজ করছে পুলিশ-ইন্টারপোল: আইজিপি ঋণ না পেলে রসাতলে যাবো, বিষয়টি তেমন নয়: বাণিজ্যমন্ত্রী ক্রান্তিকালের সুযোগ নিয়ে বিরোধী দলগুলো অশান্ত পরিবেশ সৃষ্টির চেষ্টা করছে: প্রধানমন্ত্রী সম্ভাবনা জাগিয়েও হারল বাংলাদেশ বিএনপির লড়াই দেশবাসীর জন্য: মির্জা ফখরুল বিএনপি বিভাগীয় সমাবেশের নামে চাঁদাবাজির একটা বড় প্রকল্প নিয়েছে: তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী আইনি কাঠামোয় ফিট হলে ভোটে দাঁড়াতে পারবেন খালেদা জিয়া: প্রধান নির্বাচন কমিশনার ১১ নভেম্বরের পর যুবলীগের দখলে থাকবে দেশ: পরশ খালেদাকে কারাগারে পাঠানোর চিন্তা-ভাবনা নেই: আইনমন্ত্রী পরিকল্পনা করে রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠানো যাবে না: পরিকল্পনা মন্ত্রী সরকার চাইলে তিস্তা প্রকল্পে সহায়তা করবে চীন: চীনের রাষ্ট্রদূত গাইবান্ধার বিষয়ে সিদ্ধান্ত দিতে আরো এক সপ্তাহ লাগবে: সিইসি

ক্রেতা-দর্শনার্থীর আনাগোনায় মুখরিত জুয়েলারি এক্সপো

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেটের সময় : শুক্রবার, ১৮ মার্চ, ২০২২
  • ৬৪

দেশে প্রথমবারের মতো আয়োজিত বাংলাদেশ জুয়েলারি এক্সপো মুখর হয়ে উঠেছে ক্রেতা-দর্শনার্থীদের আগমনে। সকাল থেকেই দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে জুয়েলারি এক্সপোতে প্রবেশ করতে দেখা যায় তাদের। এদের অনেকেই যেমন বিভিন্ন ছাড়ে কিনেছেন নিজের পছন্দের গহনাটি, ঠিক তেমনি ঘুরে দেখেছেনও অনেকে।

শুক্রবার (১৮ মার্চ) ছুটির দিন থাকায় সকল থেকে এই এক্সপোতে ছুটে আসেন রাজধানীবাসী। জুমার নামাজের পর ক্রেতা-দর্শনার্থীদের পদচারণায় মুখর হয়ে ওঠে পুরো ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরা (আইসিসিবি) প্রাঙ্গণ। এদিন সকাল থেকে বিকিকিনিও হয়েছে বেশ, খুশি বিক্রেতারাও।

সকালে দর্শনার্থীদের জন্য এক্সপোর গেট খুলে দেওয়া হয় সকাল ১০টায়। গেট খোলার সঙ্গে সঙ্গে প্রবেশ করতে থাকেন দর্শনার্থীরা। দুপুর ১২টার মধ্যে প্রায় ভরে যায় পুরো প্রাঙ্গণ। জুমার নামাজের পর নেমে আসে ক্রেতা-দর্শনার্থীদের ঢল।

গহনার এই প্রদর্শনী ঘুরে দেখা যায়, ছুটির দিনে যেন জনসমুদ্রে পরিণত হয় জুয়েলারি এক্সপো। অনেকেই পরিবার-পরিজন নিয়ে চলে আসেন এক্সপোতে। স্কুল-কলেজ বন্ধ থাকায় শিক্ষার্থীরাও দলবেঁধে চলে আসেন। নানা বয়সী আর বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষের উপস্থিতিতে মুখর হয়ে ওঠে পুরো আয়োজন।

এদিকে এই বিশেষ এই প্রদর্শনী উপলক্ষে সোনা এবং হীরার অলংকারসহ বিভিন্ন গহনায় বিভিন্ন ধরনের ছাড় দিচ্ছেন বিক্রেতারা। বিশেষ করে অধিকাংশ স্বর্ণের গহনায় ছাড় দেওয়া হচ্ছে মজুরি। আর ডায়মন্ড কালেশনে ২৫ থেকে ৪০ ভাগ ছাড় দেওয়ার তথ্য জানিয়েছেন বিভিন্ন বিক্রেতেরা।

এক্সপোতে ঘুরতে আসা এক দর্শনার্থী বলেন, ছুটির দিন হওয়ায় অফিস ও কাজের চাপ না থাকায় আজ ফ্রি ছিলাম। এমন সময় জানতে পারলাম যে আইসিসিবিতে জুয়েলারি এক্সপো চলছে। তাই চলে এলাম আমাদের দেশের গহনার কালেকশনগুলো দেখতে। আমি সত্যিই মুগ্ধ হয়েছি যে আমাদের দেশে এতো নান্দনিক ডিজাইনের অলংকার তৈরি হয়।  

এদিকে জুয়েলারি এক্সপোতে আগত দর্শনার্থীরা এক মিনিটেরও কম সময়ের মধ্যে স্বর্ণ এবং ডায়মন্ড পরীক্ষা করিয়ে নিতে পারছেন খুব সহজেই। দর্শনার্থীরা জুয়েলারি এক্সপোতে এসে জানতে পারবেন তাদের ব্যবহার করা ডায়মন্ড ন্যাচারাল নাকি ল্যাবরেটরি মেইড। আর স্বর্ণের গহনায় স্বর্ণ এবং অন্য ধাতুর পরিমাণ কতটুকু। আয়োজনে এই সুবিধা দিচ্ছে ডায়মন্ড পরীক্ষার বুথ এসজিএল এবং স্বর্ণ পরীক্ষার বুথ ফিশার। এগুলো থেকে আধুনিক প্রযুক্তির মাধ্যমে বিনামূল্যে ক্রেতারা পরীক্ষা করিয়ে নিতে পারবেন তাদের পণ্যটি।

বাংলাদেশ জুয়েলারি এক্সপো আয়োজক কমিটির চেয়ারম্যান ও বাজুসের কোষাধ্যক্ষ উত্তম বণিক বলেন, আয়োজনে আগত ক্রেতা-দর্শনার্থীদের এক্সপ্রেশন দেখে মনে হচ্ছে তারা সন্তুষ্ট। আর আমাদের যে শিল্পকর্ম, আমাদের দেশের কারিগররা যে এতো দারুণ অলংকার তৈরি করতে পারেন, সেটিকে ছড়িয়ে দেওয়া এই আয়োজনের মূল উদ্দেশ্য। দেশের বাইরে থেকেও অনেকেই এসেছেন এই এক্সপোতে। তারা নিজেরাও আমাদের বিভিন্ন গহনা দেখে বিস্ময় প্রকাশ করেছেন। আমরা যে এতো ঐতিহ্যবাহী গহনা তৈরি করি, এগুলো বিশ্ব জানেই না। এখন তারা জানছে এবং আগ্রহ দেখাচ্ছে। সরকার যদি এখন একটু সাহায্য করে, তাহলে এই ক্ষেত্রটি আরও বড় হতে পারে।

মেলা ১৭, ১৮ ও ১৯ মার্চ সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত দর্শনার্থী ও ক্রেতাদের জন্য উন্মুক্ত থাকবে।

মেলায় দর্শনার্থীদের জন্য ২৫ লাখ টাকার নানা আকর্ষণীয় পুরস্কার রাখা হয়েছে। র্যাফেল ড্র’র মাধ্যমে এই ২৫ লাখ টাকা দেওয়া হবে। এর মধ্যে প্রথম পুরস্কার হিসেবে একজন পাবেন ১০ লাখ টাকা। দ্বিতীয় পুরস্কার হিসেবে পাঁচ লাখ টাকা পাবেন একজন। এ ছাড়া এক লাখ টাকা করে ১০ জন পাবেন পুরস্কার।

বাংলাদেশ জুয়েলার্স অ্যাসোসিয়েশন (বাজুস) জানায়, হাজার বছরের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী এবং স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে দুঃসাহসিক এক অভিযাত্রায় সহযাত্রীদের সঙ্গে নিয়ে দেশের অর্থনৈতিক খাতের উন্নয়নের অগ্রযাত্রায় যোগ দিতে বাজুস এই প্রথম বাংলাদেশে জুয়েলারি এক্সপো-২০২২-এর আয়োজন করেছে।  

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের আরও খবর

© আল্টিমেট কমিউনিকেশন লিমিটেডের একটি অঙ্গ প্রতিষ্ঠান
Theme Customized BY LatestNews